সর্বশেষ খবর

"A + পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা  গুণগত  শিক্ষার অন্তরায়"

প্রকাশিত: 25/10/2019

মোঃ জামাল হোসেন

"A + পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা  গুণগত  শিক্ষার অন্তরায়"

শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার। খাবার ছাড়া মানুষ যেমন চলতে পারেনা, শিক্ষা ছাড়া তেমনি কোন দেশ  বা জাতি সুষ্ঠুভাবে চলতে পারেনা। মানুষ শিক্ষা গ্রহণ করে সুন্দরভাবে জীবন গড়ার  জন্য।     শিক্ষা মানুষের বিবেক বুদ্ধি জাগ্রত করে।মানুষকে সঠিক পথে চলতে সাহায্য করে।শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হল মানুষের মনুষ্যত্ব কে জাগরিত করে।  মনুষ্যত্ব না থাকলে মানুষ নানা  ধরণের খারাপ কাজে  জড়িয়ে পড়ে। যুগে যুগে মানুষ খুন, রেপ,  রাহাজানি, চোর, ডাকাতি,  ছিনতাই,  ইভ টিজিং, খারাপ ভাষায় গালি গালাজ, অন্যায়ভাবে পরের সম্পদ দখল করে,  ফিতনা ফাসাদ, ঝগড়া প্রভৃতি করে মানুষ তার শিক্ষার অভাবে।  আজকাল ছেলেমেয়ে রা শি ক্ষক কে শ্রদ্ধা  ভক্তি করেনা,  পিতামাতা কে সম্মান করেনা, বড়দের অাদেশ অনুরোধ, উপদেশ  মেনে চলেনা। শিক্ষার অভাবে ছেলেমেয়ে রা খারাপ কাজের প্র তি অাকৃষ্ট হয়। সুশিক্ষা র অভাবে ছেলেমেয়ে রা বিভিন্ন নেশার কবলে পড়ছে। ছেলেমেয়েরা মদ, গাজা, ফেনসিডিল হিরোইন, ইয়াবা, প্রভৃতি নেশার  দিকে ধাবিত হচ্ছে।  অাজ দেশ জাতি, পরিবারে অনাচার,  পাপাচার, অত্যাচার বেড়ে গেছে।অভিভাবক রা মনে করেন তাদের ছেলেমেয়ে রা যেকোন প্রতিযোগী পরীক্ষা য় A+ পেলেই তারা মহাখুশিতে,  আহ্লাদে অাটখানা হয়ে পড়েন। তারা কখনই চিন্তা করে দেখেনা 

যে সন্তানর কতটুকু জ্ঞান অাহরণ করল, কতটুকু শিক্ষা লাভ করল, কতটুকু মনুষ্য ত্ব লাভ করতে  পারল। এখনকার অভিভাবকের মূল উদ্দেশ্য হল যেকোন মূল্যে A+ পাওয়া চাই।  A+ পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা থেকেই তারা বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ে।  যেমন  প্রশ্ন আউট করা,  পরীক্ষায় নকল করা,  শিক্ষক কে ঘুষ প্রদান,  শিক্ষককে A+ দিতে বাধ্য করা ইত্যাদি।  পরীক্ষার আগে   প্রশ্ন অাউট রোধ করতে হলে নিচের নিয়মগুলো মেনে চলতে হবে :-

১. সকল সাধারণ জনগণ কে সচেতন করতে হবে।

২. পরীক্ষার নিয়ন্ত্রক কে কঠোর পদক্ষপ  গ্রহণ করতে হবে।

৩. যারা পরীক্ষায় অসুদপায় অবলম্বন করবে তাদের কে জেল জরিমানা সহ দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে।

৪. অাইন শৃঙ্খলা বাহিনী ক সোচ্চার হতে হবে।

৫. ছাত্র- ছাত্রী রা যাতে পড়াশোনায় মনোযোগ দেয় সে দিকে খেয়াল  রাখতে হবে।

৬. ছাত্র ছাত্রী কোন নেশার কবলে না পড়ে সে দিকে নজর দিতে হবে।

৭. ছেলেমেয়ে কে নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে।

৮. ছেলেমেয়ে কে অতিরিক্ত  ফেসবুক ব্যবহার নিষেধ করতে হবে।

৯. অযথা সময় নষ্ট করা থেকে বিরত রাখতে হবে।

১০. মানুষ হতে গেলে যে ধরণের গুণ থাকা দরকার সেগুলোর দিকে নজর দিতে হবে।

আরও পড়ুন

×